একদিন আমার ফুপা ইচ্ছা করে বুকে হাত দিলো…

আমি খুব নরম মনের মানুষ, কেউ আঘাত দিয়ে কথা বললে বা অবহেলা করলে খুব বেশি কষ্ট পাই। আমার বাবা বদলি হয়ে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় চলে আসেন ২০০৪ সালে। চট্টগ্রামে থাকতে আমি আর আমার ছোট বোন দুজনেই খুব ভাল ছাত্রী ছিলাম। আমার চাচারা, ফুপুরা সবাই ঢাকা থাকতেন। বান্ধবীদের ছেড়ে আসায় মন খারাপ থাকলেও ভাবলাম কাজিনরা তো আছে। আমার চাচা-চাচি এমনকি কাজিনরাও একরকম সামনাসামনি বলতে লাগল যে- ‘এখন্ তো ঢাকা থাকবে, দেখা যাবে কী করে ভালো রেজাল্ট করে্’। আমরা খ্যাত ইত্যাদি আরও অনেক কিছু বললো। কাজিনরা সবসময় একসঙ্গে থাকতো, আমাদের পাত্তা দিত না।

আমরা ঢাকায়ও ভালো রেজাল্ট করলাম। এরপর শুরু হলো আরও বেশি হিংসা করা। একদিন আমার ফুপা ইচ্ছা করে বুকে হাত দিলো। বাবার কাছে বলায় তিনি আমাকে ফুপার থেকে দূরে থাকতে বলে দায় এড়িয়ে গেলেন। আমার বাবা-মা সব জেনেও তাদের সঙ্গেই চলতেন, যেন কিছুই হয় নি। এতকিছু আমি আর মেনে নিতে না পেরে সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত হলাম। শিশুর মতো হয়ে গেলাম, গোসল, খাওয়ানো, টয়লেট সবই মা করাতেন। তখন আমার বয়স ১৫ বছর।

আমাকে সাইকিয়াট্রিস্ট দেখানো হলো, সাইকলজিইস্ট না দেখিয়ে। এরপর অনেকবার স্কুলে ভর্তি হয়েছি কিন্তু রেগুলার হতে পারি নি। অসুখ প্রায়ই বেড়ে যেতো। তারপরও হাইয়েস্টমার্ক আমারই আসতো।পড়াশোনা বন্ধ হলো ডাক্তারের পরামর্শে। এরপর ২০০৭ সালে ক্লাস নাইনে ভর্তি হয়ে রেগুলার ছাত্রী হিসেবে এস এস সি পাশ করে এইচ এস সি ও পাশ করলাম ২০১১ সালে। এ প্লাস আর এ নিয়ে। একটা নামকরা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হলাম।

এরমাঝে একবার ওষুধ খাওয়া বন্ধ করায় ২০১৫ এর ফেব্রুয়ারী মাস হাসপাতালে থাকতে হয়। তারপর আর কোন ভুল করি নি। আজ আমি স্বাভাবিক মানুষের মতই জীবনযাপন করছি। আমার সিজিপিএও অনেক ভালো।আমি বিবাহিত এবং আমার পছন্দের মানুষকেই পেয়েছি। আমার এই কথাগুলো বলার একটাই উদ্দেশ্য, সবাইকে জানানো যে জীবনে কখনো হার মানতে নেই, এগিয়ে চলার নামই জীবন। আপু, এই বার্তাটা আপনার মাধ্যমে সবাই জানুক এই আশা করি।

পরামর্শঃ

ভীষণ ভালো লাগলো আপু তোমার চিঠি পড়ে। আমার যতদূর মনে পড়ছে, তোমার সাথে মনে হয় ফেসবুকে চ্যাটও হয়েছিলা আমার…

যাই হোক, এগিয়ে চলার নামই জীবন- তোমার এই চমৎকার বার্তাটি আমি পৌঁছে দিলাম সকলের কাছে। একটি মারাত্মক অসুখ নিয়েও যে জীবনে সুখী ও সফল হওয়া যায়, তুমি তার জ্বলন্ত উদাহরণ। দোয়া করি আপু, অনেক বড় হও জীবনে। আর এভাবেই সকলকে আসার বানী শোনাও।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top