সুন্দর পিচাই গুগলের সিইও। তার বাইরে?

ইন্টারনেটের দুনিয়ায় আক্ষরিক অর্থেই এক দৈত্য GOOGLE। এমন এক দৈত্য, যাকে ছাড়া আজকের দিনে আমরা অচল।
সময় যত এগোবে, আমাদের দৈনন্দিন জীবনে প্রযুক্তির স্নেহচ্ছায়া আরওই বেশি-বেশি করে এসে পড়বে বলেই আশা। প্রযুক্তিকে উপকারী, আরও উপকারী করে তোলার এই কাজ বিশ্বজুড়ে হাতে গোনা যে তুখোড় মস্তিষ্করা চলেছেন অনলসভাবে, গর্বের সঙ্গে বলা যায়, তাদের অনেকেই ভারতীয়। বিশ্বাস না হলে একটা লিস্টি শোনাই? ইন্দ্রা নুয়ি (PEPSICO), সত্য নাদেল্লা (MICROSOFT), রাজীব সুরি (NOKIA), শান্তনু নারায়ণ (ADOBE), রাকেশ কপূর (RECKITT BENCKISER), অজয়পালসিংহ বঙ্গা (MASTERCARD), সঞ্জয় মেহরোত্র (SANDISK), ফ্রান্সিসকো ডিসুজা (COGNIZANT)। এই মানুষগুলোর প্রত্যেকে ওই কোম্পানিগুলোর হর্তাকর্তা, এবং প্রত্যেকেই ভারতীয়। এই তালিকায় এক্কেবারে টাটকা সংযোজন চেন্নাইয়ের PICHAI SUNDARARAJAN। এই কিছুদিন হল গুগ্লের সিইও পদে অধিষ্ঠিত হয়েছেন ৪৩ বছর বয়সী এই ভারতসন্তান। কে এই সুন্দর পিচাই? চেন্নাইয়ের একেবারে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবার থেকে উঠে এসে কী করে আজ কোটি-কোটি ডলারের কোম্পানির দণ্ডমুণ্ডের কর্তা তিনি?

সুন্দর সম্পর্কে ১৯টি সুন্দর তথ্য।

১. সুন্দরের সিইও হওয়ার সঙ্গে-সঙ্গে গুগল চলে এসেছে ‘ALPHABET’ নামের বড়দা কোম্পানি ছাতার তলায়। গুগলের প্রতিষ্ঠাতা LARRY PAGE ও SERGEY BRIN থাকছেন অ্যালফাবেটের দায়িত্বে। অধীনস্থ গুগলের দায়িত্বে রইলেন সুন্দর।
২. তামিলনাড়ুর চেন্নাইয়ে সুন্দরের জন্ম ১৯৭২ সালে। ভীষণ সাধারণ পরিবারের সন্তান সুন্দর ছেলেবেলা থেকেই ছিলেন মেধাবী। সাতের দশকের ভারতের সেই সাধারণ পরিবারের অসাধারণ ছেলেটির আনুমানিক সম্পত্তির পরিমাণ আজ প্রায় ১৫০ মিলিয়ন ডলার!
৩. সহকর্মীদের কাছ থেকে জানা যায়, গভীর চিন্তায় ডুবে গেলেই নাকি পায়চারি করতে থাকেন সুন্দর। ঘরভর্তি লোক, মিটিং চলছে, এদিকে চিন্তিত মুখে ঘরের মধ্যেই পায়চারি করে বেড়াচ্ছেন সুন্দর, এই দৃশ্য আচমকা দেখতে পেলে তাই অবাক হওয়ার কিছু নেই।
৪. সুন্দরের বাবা ছিলেন ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। তিনবছর টাকা জমিয়ে তবে তিনি কিনতে পেরেছিলেন একটি স্কুটার। অর্থকষ্ট থাকলেও সুন্দর ও তাঁর ভাইয়ের লেখাপড়ার ব্যবস্থায় কিন্তু কোনওদিন কোনও অভাব হতে দেননি সিনিয়র সুন্দররাজন।
৫. বাবার কাছেই ছোটবেলায় সুন্দর শুনতেন, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারদের কী-কী কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হয়। সেই শুনতে-শুনতেই নাকি প্রযুক্তির প্রতি সুন্দরের আগ্রহের জন্ম।
৬. নিজের হাইস্কুলে সুন্দর ছিলেন ক্রিকেট টিমের ক্যাপ্টেন। সেখান থেকে KHARAGPUR IIT-তে বিটেক, তারপর STANFORD UNIVERSITY থেকে এমএস, এবং অবশেষে Wharton School of the University of Pennsylvania থেকে এমবিএ।

৭. আইআইটি থেকে যখন স্ট্যানফোর্ডে যাচ্ছেন সুন্দর, তাঁর বাবাকে নিজের সেভিংস থেকে যে পরিমাণ টাকা বের করতে হয়েছিল, তা ছিল তাঁর পুরো একবছরের রোজগারের সমতুল্য।

৮. গুগলে যোগ দেওয়ার আগে সুন্দর ছিলেন McKinsey & Company-র ম্যানেজমেন্ট কনসালটিংয়ে।
৯. পিচাই গুগ্লে কাজ করছেন সেই ২০০৪ সালে। গোড়ায় তাঁর দায়িত্বে ছিল GOOGLE CHROME ও ক্রোম অপারেটিং সিস্টেমের প্রোডাক্ট ম্যানেজমেন্ট। সেইসঙ্গে GOOGLE DRIVE-এর সঙ্গেও তিনি যুক্ত ছিলেন। পরবর্তীতে GMAIL ও GOOGLE MAP দেখভালের দায়িত্বও বর্তায় তাঁর উপরেই।

১০. ২০১১-য় TWITTER সুন্দরকে মোটা টাকা অফার করে, গুগ্ল ছেড়ে টুইটারে যোগ দেওয়ার জন্য। সুন্দর সেই আহ্বানে সাড়া দেননি। গুগলও সেসময় তাঁর পারিশ্রমিক বাড়িয়ে তাঁকে আটকে রাখতে চেষ্টার কোনও ত্রুটি রাখেনি। বড়-বড় কোম্পানি যাকে নিয়ে এমন কামড়াকামড়ি করে মরে, তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ১৫০ মিলিয়ন ডলার হবে না তো কার হবে?

১১. অফিসের অভ্যন্তরের ঘাঁতঘোঁত বোঝায় সুন্দরের পারদর্শিতাই আজ তাঁকে সাফল্যের শীর্ষে এনেছে, এমনটাই মত তার সহকর্মীদের। শোনা যায়, YAHOO-র সিইও Marissa Mayer-এর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে সুন্দর তাঁর ঘরের বাইরে ঘণ্টার পর-ঘণ্টা অপেক্ষা করতেও পিছপা হননি।

১২. শুধু টুইটারও নয়, অপারেটিং সিস্টেমের দুনিয়ায় গুগলের অন্যতম বড় প্রতিদ্বন্ধী MICROSOFT-ও সুন্দরের জন্য হাপিত্যেশ করেছে বহুবার। গুগ্ল কিন্তু প্রতিবারই নজরকাড়া প্রোমোশন দিয়ে ধরে রেখেছে সুন্দরকে।

১৩. এই যে ক’দিন আগে ভারতের বাজারে এসেছিল কম দামের স্মার্টফোন, যাতে ছিল ANDROID ONE প্রযুক্তি? এই অ্যান্ড্রয়েড ওয়ানও কিন্তু ছিল সুন্দরেরই মস্তিষ্কপ্রসূত।

১৪. NEST নামের এক নামকরা কোম্পানিকে গুগলের সঙ্গে এক করে দেওয়ার পিছনেও এই সুন্দররাজনের কৃতিত্ব ছিল ষোলআনা।

১৫. হোয়াট্সঅ্যাপকে ক’দিন আগে কিনে নিয়েছে ফেসবুক, একথা অ্যাদ্দিনে আমাদের সবার জানা। কিন্তু তার আগে ল্যারি পেজ যে WHATSAPPর সিইও জ্যান কওমকে প্রায় কনভিন্স করেই ফেলেছিলেন, যাতে গুগল হোয়াট্সঅ্যাপকে কিনে নিতে পারে, তার পিছনেও ছিল সুন্দরের সুযোগ্য পরামর্শ।

১৬. Cleanliness is Next to Godliness। Greatness-ও নিশ্চয়ই। সুন্দরের অফিস নাকি সারাক্ষণ থাকে ঝকঝকে-তকতকে, ছিমছাম। আচার-আচরণের পাশাপার্শ্বিকেও সুন্দর তাই মেইনটেন করেন স্নিগ্ধতা।
১৭. পিচাইয়ের প্রেম এদেশের মাটিতেই। খড়্গপুর আইআইটির সহপাঠিনী অঞ্জলির সঙ্গে প্রেম এবং তারপর বিয়ে। বর্তমানে দুই সন্তানের সুখী পিতা সুন্দর।

১৮. স্যামসাংয়ের ফোনে ব্যবহার করা হয় গুগলের অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তি। ব্যবসায়িক সম্পর্কের বাইরে ব্যক্তিগত স্তরেও যাতে পার্টনার স্যামসাংয়ের সঙ্গে গুগলের সম্পর্ক মসৃণ থাকে, সেই উদ্দেশ্যে নিজের উদ্যোগে সুন্দর একদিন ল্যারি পেজ ও গুগ্লের অন্য কর্তাব্যক্তিদের উড়িয়ে নিয়ে গিয়েছিলেন দক্ষিণ কোরিয়ায় SAMSUNG-এর এক কারখানায়।

১৯. পরিচিতরা বলেন, তুখোড় বিশ্লেষণী ক্ষমতার পাশাপাশি সুন্দরের আছে এক অসামান্য ইউনিক প্রতিভা। গাণিতিক যে কোনও নাম্বার একবার শুনলেই বহুদিন মনে রাখতে পারেন সুন্দর। যে কারণে কারও ফোন নাম্বার লিখে রেখে বা ‘সেভ’ করে রাখার প্রয়োজনই পড়ে না তাঁর।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top