পাবজি খেলতে নিষেধ করায় স্বামীকে ডিভোর্স!

নতুন বিয়ে হওয়ার পর বাড়ির কাজ, স্বামীর সঙ্গে সময় দেওয়া, সব কিছু ফেলে বউ সারাদিন মুখ গুঁজে বসে থাকেন মোবাইল গেম খেলায়। কী গেম? না যে গেম নিয়ে চারিদিকে তোলপাড় চলছে। সেই পাবজিতে মগ্ন নতুন বউ।

এসব দেখে তীব্র চটে গিয়েছিলেন তার বর। পাবজি খেলা বন্ধ করতে হবে’– হুঙ্কার দিয়ে ওঠেন স্বামী। আর স্বামীর হুঙ্কার শুনে স্ত্রী যা করলেন, তাতে প্রায় সকলেরই চক্ষু চড়কগাছ।

যাই হয়ে যাক, যত ঝড়-জলই আসুক, PubG তিনি ছাড়তে পারবেন না। সাফ কথা জানিয়ে স্বামীর কাছ থেকে ডিভোর্স চেয়েছেন ওই মহিলা।

ঘটনাটি ঘটেছে আরবে। আজমান পুলিশের সোশ্যাল সেন্টারের ডিরেক্টর ক্যাপ্টেন ওয়াফা খলিল যিনি এই কেসের তদন্ত করছেন, তাকে ওই মহিলা বলেছেন, আমার সামান্যতম বিনোদনের উপাদানটুকু কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে। আর যে আমার সঙ্গে এমনটা করতে উদ্যত হচ্ছে আর যাই হয়ে যাক, তার সঙ্গে থাকা সম্ভব নয়।

এক পুলিশ অফিসার ক্যাপ্টেন আল হোসানি বলছেন, অনলাইন গেম সংক্রান্ত বহু অভিযোগই আমরা পেয়েছি। কিন্তু এরকম ডিভোর্স অবধি কোনও কেস গড়িয়ে যাবে, ভাবতেও পারিনি। মহিলা পুলিশ স্টেশনে আসা মাত্রই গর্জে ওঠেন। পাবজি গেম নিয়ে যুগলের মধ্যে লড়াই হওয়ার পরেই তিনি থানায় এফআইআর করতে এসেছিলেন।

হঠাকারিতার বশে মহিলার এমনতর সিদ্ধান্তে ব্যথিত তার স্বামী। তার কথায়, ওঁর স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করার কোনও ইচ্ছাই আমার নেই। কিন্তু আমি পরিবারটাকে একসঙ্গে রাখতে চাই। একটা সামান্য জিনিসের জন্য আমাদের দূরত্ব বাড়ছে, যেটা আমি হারে হারে টের পাচ্ছি। কিন্তু ওঁকে থামাতে গিয়ে বিষয়টা যে ডিভোর্স অবধি গড়াবে, স্বপ্নেও কল্পনা করতে পারিনি।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top