ফোনের তথ্য সুরক্ষিত রাখবেন কীভাবে?

ব্যক্তিগত বা সাংগঠনিকস্তরে সবরকম বাণিজ্যিক বা অফিসের কাজ মোবাইল বা ল্যাপটপের মাধ্যমে করা হচ্ছে যা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। অবশ্য পোশাগত বা ব্যক্তিগতজীবনে মোবাইল বা ল্যাপটপ ব্যবহারের সুবিধাও অনেক। যে কোনও জায়গায় বসেই কাজ করা যায়। মোবাইলের নিজস্ব গঠনগত বৈশিষ্ট্য থাকলেও তথ্য আদান-প্রদানে নিরাপত্তার বিষয়টি গুরুত্তপূর্ণ। এখানেও নানাভাবে প্রতারিত ও আক্রান্ত হওয়ার সম্ভবনা আছে। যেমন টোল ফ্রি নম্বর থেকে বা মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে মেসেজ পাঠানো হচ্ছে। না জেনে না বুঝেই মোবাইলে আসা যেসব বিষয়ে ক্লিক করলে আপনি বিপদে পড়তে পারেন। এখন মোবাইলে নানা ক্ষতিকর প্রোগ্রাম পাঠিয়ে তা গ্রহণের করানোর চেষ্টা করে ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করা হয়।

গোপন তথ্য প্রকাশ

প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা না থাকলে কিছু সংকেত ব্যবহার করে আপনার গোপন তথ্য প্রকাশ করে দেওয়া যেতে পারে। আপনার ডিভাইস হারিয়ে গেলে বা চুরি হয়ে গেলে তা যদি যথাযথভাবে পাসওয়ার্ড বা ব্যবহারজনিত অন্যান্য বিষয়ে সুরক্ষিত না থাকে তাহলে আপনার ক্ষতি হতে পারে।

মোবাইল ভাইরাস

কম্পিউটারের মতো সুবিধযুক্ত মোবাইলগুলির ক্ষেত্রে ভাইরাস হল প্রধান শত্রু। মোবাইল সাধরণত ভাইরাস বিষয়ে খুব সংবেদনশীল। ঢিলেঢালা নিরাপত্তার সুযোগে মোবাইলে ভাইরাস ঢুকে পড়ে তা অকেজো করে দিতে পারে। কোনও কিছু ডাউনলোড করার সময় ভাইরাস আপনার মোবাইলের অপারেটিং সিস্টেম নষ্ট করে দিতে পারে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top