ঘরকে মশামুক্ত রাখুন সহজ কিছু উপায়ে!

ঢাকাবাসীর জন্য মশা যেন এক মূর্তিমান আতংকের নাম। ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়াসহ নানা ধরনের রোগ তো আছেই, এছাড়া মশার কামড়ও খুব বিরক্তিকর একটি বিষয়। মশা নির্মূলে নগরবাসী ব্যবহার করে নানা ধরনের রাসায়নিক দ্রব্য। যা অনেক ক্ষেত্রে মশা তাড়াতে যেমন কার্যকর নয়, তবে তা স্বাস্থ্যের জন্য খুব ক্ষতিকর। আসুন ঘরকে মশামুক্ত রাখার কিছু প্রাকৃতিক উপায় সম্পর্কে জেনে নিই।

নিমের তেল:

American Mosquito Control Association তাদের গবেষণায় খুঁজে পেয়েছে নিমের তেল এবং নারিকেলের তেল একসাথে মিশিয়ে ব্যবহার করলে মশাকে দূরে রাখা যায়। এক্ষেত্রে নিমের তেল এবং নারিকেলের তেলের অনুপাত হবে ১:১। নিমের তেলে এ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, এ্যান্টিফাংগালসহ নানা উপাদান রয়েছে। তাই নিমের তেলের গন্ধ পেলেই মশারা দূরত্ব বিজায় রাখে। নিমের তেল এবং নারিকেলের তেল একসাথে মিশিয়ে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মাখা হলে, প্রায় আট ঘণ্টার জন্য মশার কামড় থেকে মুক্তি মিলবে।

কর্পূর:

মশা নির্মূলে কর্পূরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। অল্প পরিমাণ কর্পূর রুমের কিছু জায়গায় ছড়িয়ে দিন। এরপর ১৫-২০ মিনিট রুমের দরজা, জানালা বন্ধ রাখুন। এর মাধ্যমে আপনি পাবেন মশামুক্ত পরিবেশ।

পুদিনা পাতা:

Journal of Bioresource Technology এর তথ্যনুসারে, পুদিনা পাতার তেল এবং অন্যান্য অংশকে কাজে লাগিয়ে ঘর থেকে মশা দূর করা যায়। আপনি পুদিনা পাতা নানাভাবে ব্যবহার করতে পারেন। যেমন আপনি নিজের শরীরে পুদিনা পাতার তেল লাগাতে পারেন। আবার বাইরে জানালার সামনেই পুদিনা গাছ রোপণ করতে পারেন। এছাড়া আপনি কিছুটা পুদিনা পাতা ফ্লেভারের মাউথওয়াশের সাথে অল্প পরিমাণ পানি মিশিয়ে ঘরের বিভিন্ন জায়গায় স্প্রে করতে পারেন। এটাও মশা তাড়াতে ভালো ভূমিকা পালন করে।

ইউক্যালিপটাস এবং লেমন অয়েল:

CDC (Center for Disease Control) এর তথ্য অনুসারে ইউক্যালিপটাস এবং লেমন অয়েলের মিশ্রণ মশা থেকের সুরক্ষার এক কার্যকরী প্রাকৃতিক পদ্ধতি। শরীরে এই তেল লাগালে তা এ্যান্টিসেপ্টিক হিসাবে এবং পোকা মাকড়কে দূরে রাখতে ভূমিকা পালন করে। তাই এই তেলের সবচেয়ে ভালো দিক হল এটা একদম প্রাকৃতিক, তাই অন্যান্য রাসায়নিক দ্রব্য থেকে স্বাস্থ্যকে বেশি সুরক্ষা দেয়। কার্যকরী ফল পেতে ইউক্যালিপটাস এবং লেমন অয়েল সমান অনুপাতে মিশিয়ে তারপর ব্যবহার করতে হবে।

রসুন:

মশা দমনে রসুনও বেশ কার্যকরী। এটা মশা মেরে ফেলার জন্য এক অনন্য প্রাকৃতিক সমাধান দেয়। এটার গন্ধ আপনার খারাপ লাগলে পারে, কিন্তু এই গন্ধই মশাকে দূরে রাখতে সাহায্য করে। তাই কয়েক কোয়া রসুনকে পিষে তা পানির মধ্যে ছেড়ে দিন। তারপর পানি গরম করতে থাকুন। এরপর এই দ্রবণ কিছুটা ঠাণ্ডা হলে ঘরের বিভিন্ন জায়গায় স্প্রে করুন। এতে আপনার বাসা থেকে মশা দূরে থাকবে। আর যারা আরও ভালো ফলাফল চান, তারা নিজের শরীরেও স্প্রে করতে পারেন, এর ফলে মশা আর আপনাকে কামড়াতে চাইবে না।

তুলসি গাছ:

Parasitology Research Journal এর তথ্য অনুসারে, তুলসি গাছ মশার লার্ভা দমনে এবং মশাকে দূরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। তুলসি গাছকে মশা দমনে পূর্ণাঙ্গ কাজে লাগানোর জন্য, আপনাকে জানালার সামনে একটি তুলসি গাছ লাগালেই চলবে। এই গাছ আপনার ঘরকে মশা থেকে সুরক্ষা প্রদান করবে।

সূত্র: thehealthsite.com
ফটো ক্রেডিট: www.associatedphysicians.com

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top