বিষণ্ণতাকে দূর করে দিন সহজ ৭টি উপায়ে

জীবনের অনেক ক্ষেত্রে মানুষকে বিষণ্ণ হতে হয়। একজন মানুষ যে সব সময় সুখী থাকবেন এমন কোন কথা নেই। বিভিন্ন কারণে একজন মানুষ বিষণ্ণ হতে পারেন জীবনের নানা ধাপে। সাধারণত দুই ধরণের বিষণ্ণতা রয়েছে। এক দীর্ঘমেয়াদি বিষণ্ণতা, দুই হতাশা। দীর্ঘমেয়াদি বিষণ্ণতার পিছনে তাদের অসুখী জীবনযাপন করা দায়ী। মানুষ কী কী কারণে হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন বা বিষণ্ণতায় ভোগে তা এখনও গবেষণার বিষয়বস্তু।

বিষণ্ণতার কারণ হিসাবে জানা যায়-

  • অতীত কোন ঘটনা
  • পারিবারিক ইতিহাস
  • ব্যক্তিত্ব
  • শারীরিক অসুস্থতার
  • ধূমপান
  • মদ্যপান
  • অপর্যাপ্ত ঘুম ইত্যাদি।
  • বিষণ্ণতা দূর করার জন্য করণীয়

 

১। হতাশার সাথে যুদ্ধ করবেন না

আপনি যখন হতাশ থাকেন তখন আপনার মনে অনেক নেতিবাচক বিষয় কাজ করে। আপনি সারাক্ষণ চেষ্টা করেন হতাশা থেকে বের হয়ে আসার। আর এই কাজটি আপনাকে আরও বেশি হতাশার মধ্যে ঠেলে দেয়। হতাশার বিষয় নিয়ে চিন্তা করা ছেড়ে দিন। আপনি আপনার দৈনন্দিন কাজগুলো ঠিকমত করুন। দেখবেন এক সময় আপনার নিজের অজান্তে হতাশা দূর হয়ে গেছে।

২। গান শুনুন

সঙ্গীতকে আত্মার খাবার বলা হয়। একটি সুন্দর গান যে কোন পরিবেশকে মুহূর্তে পরিবর্তন করে ফেলার ক্ষমতা রাখে। বিষণ্ণতা দূর করতে শুনুন কোন হালকা মন ভাল করে দেওয়ার মত গান।

৩। অতীতকে বিদায় বলুন

অতীতের কষ্টের স্মৃতি আঁকড়ে রাখলে বিষণ্ণতা থেকে বের হয়ে আসাটা বেশ কষ্টকর হয়ে পরে। অতীতের ভুলগুলো মনে করে বর্তমানকে নষ্ট হতে দেবেন না। অতীতকে যেতে দিন, বর্তমানকে নিয়ে চিন্তা করুন। দেখবেন অতীতের কোন কিছু আর আপনাকে বিষণ্ণ করে তুলছে না।

৪। ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড খাবারে রাখুন

এক গবেষণায় দেখা গেছে যে হতাশাগ্রস্ত মানুষদের ইপিএ নামক ফ্যাটি এসিডের অভাব রয়েছে। Archives of General Psychiatry এক জরিপে দেখেছে যেসব ব্যক্তি  প্রতিদিন এক গ্রাম করে মাছের তেল খেয়েছেন তাদের ৫০% দুশ্চিন্তা, বিষণ্ণতা, অনিদ্রা কমে গিয়েছে।  ওমেগা থ্রি শুধু বিষন্নতা দূর করে থাকে না, এটি দেহের কোলেস্টোরল হ্রাস করে থাকে।

৫। নেতিবাচক কথা বলা থেকে বিরত থাকুন

“আমাকে দিয়ে এটা হবে না”, “আমি এটা পারব না” এইধরণের নেতিবাচক কথা বলা বন্ধ করুন। হতাশাগ্রস্ত মানুষরা পৃথিবীর সব খারাপ দেখে। তাদের জীবনের সব খারাপ কিছুর জন্য নিজেদের দায়ী করে থাকে আর ভাল কিছু হলে সেটি ভাগ্যের গুণ বলে থাকে। নিজের ভিতরে শক্তিকে অবজ্ঞা করা ছেড়ে দিন। আপনিও পারবেন আপনার সেই ক্ষমতা আছে। শুধু দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তন করুন।

৬। কাছের মানুষের সাথে শেয়ার করুন

আপনার বিষণ্ণতার কারণটি কাছের মানুষের সাথে শেয়ার করুন। যে আপনার কষ্টটি বুঝবে। আপনার অনুভূতি নিয়ে মজা করবে না। কষ্ট শেয়ার করার কারণে আপনার মন অনেক হালকা হয়ে যাবে। আপনার বিষণ্ণতাও কমে যাবে অনেকখানি।

৭। মজার কিছু দেখুন

আপনি যখন বিষণ্ণ বা হতাশ থাকবেন তখন কোন মজার মুভি দেখুন। এটি আপনার মুড সাথে সাথে পরিবর্তন করে দিবে। এমনকি এটি আপনার চিন্তাকে অন্যদিকে নিয়ে যাবে। আপনার যদি পোষা প্রাণী থাকে, তবে তার সাথেও সময় কাটাতে পারেন। এটিও আপনাকে বিষণ্ণতা দূর করতে সাহায্য করে থাকবে।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top