মেজাজ বদলে দিতে পারে আপনার যে কাজগুলো

বেশিরভাগ মানুষের মাঝেই মেজাজ হঠাৎ উঠা নামা করার প্রবণতা রয়েছে। তবে অনেকেরই জানা থাকে না কিসের প্রভাবে এমন হয়। যদিও প্রতি মুহূর্তে অনেক ধরনের বিষয় আমাদের শরীর ও মনকে প্রভাবিত করে তবে আমাদের প্রতিদিনের জীবন যাপনের অভ্যাসে কিছুটা পরিবর্তন এনেই সেগুলোকে অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।

দৈনন্দিন জীবনের কিছু অভ্যাস এবং বেশ কিছু খাবার রয়েছে যা মানসিক অবস্থার উপর প্রভাব বিস্তার করতে পারে। এমনকি কিছু বিশেষজ্ঞরা বলেছেন যে আমাদের আশেপাশে থাকা রঙও আমাদের অনুভূতিকে প্রভাবিত করতে পারে।

মানসিক চাপ এবং কাজকর্মের ধরন মন মেজাজের উপর প্রভাব ফেলে। এখানে যেসব বিষয় বা কাজগুলো মানসিক অবস্থাকে প্রভাবিত করে সেই ধরনের কিছু বিষয় জানানোর চেষ্টা করবো।

শারীরিক ব্যায়াম

শারীরিক ব্যায়াম মানসিক অবস্থাকে বদলে দিতে পারে। কারন শারীরিক ব্যায়ামের করার পর দেহে মন ভালো করার রাসায়নিক পদার্থ এন্ডোর্ফিন নির্গত হয় যার ফলে মানসিক অবস্থা ভালো হয়।

ডায়েটিং

ওজন কমাতে ডায়েটিং এর নামে অনেকেই যে কাজটি করেন তা হলো সব ধরনের খাবার গ্রহণের পরিমাণ কমিয়ে দেয়। এটি বিভিন্ন ভাবে মানসিক অবস্থার উপর প্রভাব ফেলে। তাই যদি কেউ দেখেন খাবারের পরিবর্তনের জন্য নিস্তেজ বোধ হচ্ছে তাহলে সেটা বন্ধ করে দেয়াই ভালো।

মিষ্টি জাতীয় খাবার

অনেক ধরনের খাবার মানসিক অবস্থাকে প্রভাবিত করতে পারে। মিষ্টি জাতীয় খাবার হঠাৎ মেজাজ উঠানামার জন্য অনেকাংশে দায়ী যেখানে স্বাস্থ্যকর খাবার মেজাজের স্থিরতা রাখতে সাহায্য করে।

ঘুমের অপ্রতুলতা

যেদিন ঘুম কম হয় পরদিন কিছুটা বিরক্তি বা রাগান্বিত ভাব থাকাটাই স্বাভাবিক। তাই এ থেকেই বোঝা যায় যে ভালো ঘুম মানসিক অবস্থা ভালো রাখতে সাহায্য করে।

খাবারের প্রতি মনোযোগ

অনেক বিশেষজ্ঞদের মতে মনোযোগের সাথে খাওয়া দাওয়া করলে তা মনকে ভালো রাখতে সাহায্য করে।

হরমোনের পরিবর্তন

মহিলাদের ক্ষেত্রে হরমোনের পরিবর্তন মানসিক অবস্থার উপর বেশ ভালো প্রভাব বিস্তার করে। এছাড়া ঋতুচক্রের সময় মেজাজ উঠানামা করতে পারে অনেকেরই।

স্ট্রেস

মানসিক অবস্থার উপর স্ট্রেস সুস্পষ্ট প্রভাব বিস্তার করে। কারন যখনি কেউ চাপে থাকে তখন সে ভালো থাকতে পারে না।

পানিশূন্যতা

দেহের পানিশূন্যতা বিভিন্ন দিকে বিপদজনক প্রভাব ফেলতে পারে। সেটা মানসিক অবস্থার উপরও প্রভাব ফেলে। তাই পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে।

সূর্যালোক ও পর্যাপ্ত আলো বাতাস

বিশেষজ্ঞদের মতে একজন মানুষ ভালো থাকার জন্য পর্যাপ্ত আলো বাতাস ও সূর্যালোক অত্যন্ত প্রয়োজন। কারন সূর্যালোক মানসিক অবস্থার উপর প্রভাব ফেলতে পারে।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top