৭ টি উপায়ে সহজ রাখুন শাশুড়ির সাথে সম্পর্ক

‘বিয়ে’ ছোট একটি শব্দ কিন্তু এর পরিধি বিশাল। বিয়ের মাধ্যমে একটি ছেলে এবং মেয়ের জীবনে শুরু হয় নতুন এক অধ্যায়। বিয়েতে একটি ছেলের চেয়ে একটি মেয়েকে করতে হয় অনেকটাই বেশি আত্নত্যাগ। মানিয়ে চলতে হয় নতুন পরিবারে সাথে, নতুন সম্পর্কের সাথে। বিয়ের সম্পর্কগুলোর মধ্যে সবচেয়ে স্পর্শকাতর সম্পর্ক হয়ে থাকে বউ-শাশুড়ির সম্পর্ক। আর বেশি সমস্যাও দেখা দিয়ে থাকে এই বউ-শাশুড়ির সম্পর্কের মাঝেই। কিছু কথা থাকে  যা শাশুড়িরা কখনও মুখ ফুটে বউদেরকে বলেন না। তারা চান এই কথাগুলো বউরা নিজে থেকে বুঝে নিক।  বউয়েরা সেগুলো একটু বুঝে মানিয়ে চললেই শাশুড়ির মন যুগিয়ে চলা সম্ভব।

১। তিনি এখনও তাঁর ছেলের মা

বেশিরভাগ মায়েরা বিয়ের পর ছেলেকে হারানোর ভয়ে থাকেন। তারা মনে করেন তার ছেলেটি আর তাকে আগের মত সম্মান করবে না বা ভালবাসবে না। তাকে হারানোর ভয় সর্বদা তার মধ্যে কাজ করে। তিনি মুখ ফুটে না বললেও আপনাকে এই বিষয়টি বুঝে নিতে হবে। তাকে আশ্বাস দিন যে তাঁর ছেলে তাঁরই আছে এবং থাকবে। এতে অনেক সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব হবে।

২। মেনে নিন 

আপনার শাশুড়ির অনেক কিছু আপনার অপছন্দের হতে পারে। তাই বলে তাকে পরিবর্তন করার চেষ্টা করবেন না। তিনি যেমন তার চিন্তাধারা যেমন তেমনভাবেই গ্রহণ করুন। তাকে বোঝার চেষ্টা করুন। তার দৃষ্টিভঙ্গিকে সম্মান করুন।

৩। তাঁর অভিজ্ঞতা বেশি

সংসার জীবন সম্পর্কে আপনার চেয়ে আপনার শাশুড়ির জ্ঞান এবং অভিজ্ঞতা বেশি। তাই যেকোন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে তার সাথে আলোচনা করে নিন। তার অভিজ্ঞতাকে ছোট করে দেখবেন না। এই ছোট একটি বিষয় আপনাদের সম্পর্ককে আরও মজবুত করে তুলবে।

৪। প্রশংসা করুন  

শাশুড়ির কাজের প্রশংসা করুন। তাঁর রান্নার প্রশংসা করুন। আপনি যদি নতুন মা হয়ে থাকেন, তবে তাঁর কাছ থেকে বাচ্চা লালন পালন সম্পর্কে পরামর্শ নিন। এতে তাঁর অভিজ্ঞতার মূল্য দেওয়া হবে।

৫। আমরা একটি পরিবার

আপনার পরিবারকে শাশুড়ির পরিবার থেকে আলাদা করে দেখবেন না। আপনার পরিবারের একটি গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হলেন আপনার শাশুড়ি। তাঁর সাথে পরিবারে বিষয় আলোচনা করুন, কথা বলুন, মজা করুন। এমনকি বাইরে কোথাও খেতে যাওয়ার সময় তাঁকে সাথে নিন।

৬। যোগাযোগ রাখুন

শাশুড়ির সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রাখুন। আপনারা আলাদা বাসায় থাকলে দিনে কমপক্ষে একবার তাঁকে ফোন করুন। তাঁর সাথে কথা বলুন। সময় করে তাঁর বাসা থেকে ঘুরে আসুন। এই বিষয়টি আপনাদের সম্পর্ককে আরও সুন্দর করে তুলবে।

৭। ধন্যবাদ দিন

শাশুড়িকে ধন্যবাদ দিন। আপনাদের পরিবারের জন্য যা কিছু করেছে তা যত ছোট হোক না কেন তার জন্য তাকে ধন্যবাদ দিন। তার ছেলেকে একজন সুন্দর মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য তাকে ধন্যবাদ দিন।

শাশুড়িকে নিজের মার মত দেখুন, দেখবেন অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে গেছে।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top