ঝকঝকে ওভেন পেতে চান? করুন এই কাজটি

রান্নাবান্না পছন্দ করেন এমন অনেক আধুনিক মানুষের বাড়িতেই আছে একটি ওভেন। ওভেন থাকলে যেমন অনেক কাজ সহজ হয়ে যায়, তেমনি করা যায় নতুন নতুন কিছু রান্না। কিন্তু একটি অসুবিধার দিক হলো, ওভেন পরিষ্কার করা। ওভেন পরিষ্কার করতে গিয়ে অনেকেই একেবারে নাকাল হয়ে পড়েন। রান্নাঘরে থাকে বলে অনেকে কেমিকেল ক্লিনার ব্যবহার করতেও চান না। তারা কী করে পরিষ্কার করবেন ওভেন? চলুন, দেখে নেই সহজেই একটি ওভেন ক্লিনার তৈরির কৌশল।

যা যা লাগবে

  • –   সিকি কাপ লিকুইড সোপ
  • –   আধা কাপ বেকিং সোডা
  • –   সিকি কাপ হাইড্রোজেন পারক্সাইড
  • –   একটা লেবুর খোসা কুচি
  • –   ১ টেবিল চামচ ভিনেগার
  • –   স্ক্রাব করার জন্য স্পঞ্জ
  • –   মোছামুছির সময়ে অবশ্যই হাতে গ্লাভস পরে নিতে হবে

যা করতে হবে

১) আপনার ওভেনে যদি বছর পুরনো ময়লা একেবারে শক্ত হয়ে লেগে থাকে, তাহলে প্রথমেই স্পঞ্জ এবং উষ্ণ সাবান পানি দিয়ে মুছে নেওয়াটা দরকার।

২) তালিকার উপকরণগুলো একসাথে মিশিয়ে নিন। ঘন আঠার মতো একটা মিশ্রণ হবে। বেকিং সোডা মোছামুছির জন্য সহায়ক। লিকুইড সোপ এবং হাইড্রোজেন পারক্সাইড জমে থাকা ময়লা ওঠাতে সহায়ক। লেবুর খোসা মিষ্টি একটা সুগন্ধ তৈরি করবে।

৩) ওভেনের র‍্যাকগুলো বের করে নিন। একটা পেপার টাওয়েল অথবা স্পঞ্জে এই ক্লিনার লাগিয়ে ওভেনের ভেতরে পুরোটা মাখিয়ে দিন। ওভেনের দরজার ভেতরের দিকেও লাগিয়ে নিন। কিন্তু এখনই মোছা শুরু করবেন না। ওভেনের ভেতরে পুরো মিশ্রণটা মাখিয়ে দরজা বন্ধ করে রেখে দিন ৪ ঘন্টার মতো। এ সময়ে ওভেনের র‍্যাকগুলো পরিষ্কার করে নিন।

৪) ওভেন খুলে একটা ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে মোছা শুরু করুন। একটানে মুছবেন না, সবানাপানিতে বারবার করে ধুয়ে নিন স্পঞ্জটাকে। এভাবে মুছতে থাকলেই ওভেন পরিষ্কার হয়ে যাবে।

৫) আপনার ওভেনের যদি “self-cleaning” অপশন থাকে তাহলে সেটা ব্যবহার করতে পারেন। সেলফ ক্লিনিং শেষ হলে কিচেন টিস্যু দিয়ে ভেতরটা মুছে নিন। ব্যাস, দেখুন কতো পরিষ্কার হয়ে গেছে আপনার ওভেন।

টিপস

–   শুধু বেকিং সোডা এবং পানির পেস্ট মাখিয়েও সারারাত ওভেন রেখে দিতে পারেন এবং সকালে পরিষ্কার করে ফেলতে পারেন।

–   এরপর অল্প করে ভিনেগার স্প্রে করে মুছে নিলে ওভেন একেবারে চকচকে হয়ে উঠবে।

 

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top