মাত্র ৭ টি সহজ ধাপে শিখুন সাঁতার

বাংলাদেশ নদীমাতৃক দেশ হওয়া সত্ত্বেও শহুরে জীবনে অভ্যস্থ আমরা অনেকেই সাঁতার জানি না। অথচ সাঁতার জানা শুধু আপনার আত্মরক্ষার জন্যই দরকারি নয়, বরং এটি একটি চমৎকার শরীরচর্চাও। নিয়মিত সাঁতার আপনাকে বিভিন্ন স্বাস্থ্যসমস্যা থেকে মুক্ত রাখবে, নিশ্চিত করবে সুস্বাস্থ্য। মাত্র সহজ ৭ টি ধাপে আপনিও হতে পারেন দক্ষ সাঁতারু।
১। পানিকে ভয় করবেন না
সাঁতার শেখার প্রথম ধাপ হল পানির সাথে সখ্যতা তৈরি। ভয়কে জয় করে পানিতে নামুন। কম গভীরতা সম্পন্ন কোথাও দাঁড়ান, লেকের সিঁড়িতে, পুকুরের ঘাটে যেখানে পা মাটিতে ঠাঁই পাবে। আপনার প্রশিক্ষক তো আপনার সাথেই আছেন। ভয়ের কিছু নেই।

২।পানিতে ভেসে থাকা
২য় ধাপে পানিতে ভেসে থাকা শিখুন। আমরা যারা সাঁতার জানি না তাদের মনে হবে, পানিতে নামলেই আমরা ডুবে যাব ঠিক একটা পাথরের টুকরো যেভাবে ডুবে যায়। কিন্তু এই ধারণা একেবারেই ভুল। ভেসে থাকা খুবই সহজ। আপনি ততক্ষণ স্বচ্ছন্দে ভেসে থাকতে পারবেন যতক্ষণ আপনার লাংস থাকবে বাতাসে পরিপূর্ণ। কোনকিছুকে হাত দিয়ে ধরে নিজের শরীরকে ধীরে ধীরে শিথিল করে দিন।

৩। স্টারফিশের মত ভেসে থাকা
পানিতে আকাশের দিকে মুখ করে পুরো শরীরকে ভাসিয়ে রাখতে শিখুন। পুরো শরীর থাকবে একদম সোজা, হাত পা চার দিকে ছড়িয়ে ঠিক স্টারফিশ যেভাবে থাকে।

৪। পানিতে শ্বাস নিয়ন্ত্রণ
৪র্থ ধাপে পানির নিচে শ্বাস নিয়ন্ত্রণ অনুশীলন করুন। এটি খুবই জরুরী।

৫। ভাসমান অবস্থায় হাত পা সঞ্চালন
এবার ভাসমান অবস্থায় নিজের হাত পা কে নাড়ুন। ধীরে ধীরে একটা নির্দিষ্ট তালে হাত পা সঞ্চালন করুন। সাইকেল চালানোর সময় যেভাবে পা চালিয়ে আমরা প্যাডেল ঘুরাই সেভাবে পা চালনা করুন। হাতকেও একই তালে চালনা করুন।
৬। মাথা পানির উপরে তুলুন
হাত পা সঞ্চালন করতে করতে এবার মুখ উপরে তোলার চেষ্টা করুন। মাথা পানির উপরে থাকবে এবং কাঁধ বরাবর থাকবে আপনার সারা শরীর ভাসমান অবস্থায়। একই সাথে হাত পা সঞ্চালনের অনুশীলন করতে থাকুন।

৭। সামনে এগিয়া যাওয়া
সপ্তম এবং শেষ ধাপ হাত পা চালনা করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা। বুকে ভর দিয়ে সামনের দুই হাতে পানিকে পেছনে সরিয়ে দিয়ে নিজেকে সামনে ঠেলে দিন। বুকে ভর দিয়ে নিজেকে সামনে ঠেলে দেয়া একটি কঠিন পদ্ধতি। কিন্তু অনুশীলন করতে থাকলে একসময় শিখে যাবেন।

কোথায় শিখবেন:
হোটেল সোনারগাঁও, র‌্যাডিসন ওয়াটার গার্ডেন, দ্যা ওয়েস্টিন, বঙ্গবন্ধু জাতীয় সুইমিংপুল, জাতীয় সুইমিংপুল কমপ্লেক্স (মিরপুর), বাংলাদেশ মহিলা ক্রীড়া সংস্থা, অফিসার্স ক্লাব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সুইমিং পুলে সাঁতার প্রশিক্ষণের সুব্যবস্থা রয়েছে।

প্রতিদিন অনুশীলন করলে ১৫-২০ দিনে একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ সাঁতার শিখতে পারে। যদি প্রশিক্ষণকেন্দ্রে না যেতে চান সেক্ষেত্রে অবশ্যই দক্ষ একজন সাঁতারুকে সাথে রাখবেন। একা একা সাঁতার শেখার চেষ্টা করা ঝুকিপূর্ণ।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top