বাচ্চাকে টাক করালে কি চুল বেশি গজায়?

জন্মের পরপরই শিশুর মাথা কামিয়ে দিলে আরও ভালো চুল গজায় বলে অনেকেই বিশ্বাস করেন। উপমহাদেশীয়দের মধ্যে মাথা টাক করার প্রথা বেশি প্রচলিত। ভারতীয়দের অনেকেই ১৮ মাসে জন্মের সময়কার চুল কামিয়ে দেওয়ায় বিশ্বাসী।

কিন্তু সত্যিই কি মাথা টাক করার সঙ্গে ভালো চুল গজানোর সম্পর্ক রয়েছে? বিজ্ঞান কিন্তু তা বলছে না।

জন্মের সময় শিশুর মাথায় যে চুল থাকে, তা সাধারণত পাতলা ও নরম হয়। এই চুল এমনিতেও একটা বয়সের পর ঝরে গিয়ে নতুন চুল গজায়। ঠিক যেমন দুধের দাঁত পড়ে গিয়ে নতুন দাঁত গজায়।

পরিণত চুল অনেক বেশি মোটা হয়। কারোর মাথায় কেমন চুল হবে তা ফলিকলস-এর ওপর নির্ভর করে এবং আমরা প্রত্যেকেই জন্মের সময় নির্দিষ্ট সংখ্যক ফলিকলস নিয়ে জন্মাই। টাক করা হলেও এই ফলিকলস-এর সংখ্যা কিন্তু বাড়ে না।

বিজ্ঞান বলছে, চুল ঘন হবে না পাতলা, তা জিনের ওপর নির্ভর করে। তাই ভালো চুলের আশায় বাচ্চাকে বারবার টাক করানো আসলে অর্থহীন।

মাথা ন্যাড়া করার পর যে চুল গজায় তার মুখ মোটা হওয়ায় অনেক সময় মনে হয় যে বেশি চুল গজিয়েছে, কিন্তু তা আসলে সম্ভব নয়।

কমেন্টসমুহ
BD Life BD Life

Top