কাঁথা-কম্বল-লেপ থেকে স্যাঁতস্যাঁতে গন্ধ দূর করার উপায়

বছরের অল্প কয়েক মাস শীতের কাপড় ব্যবহার করা হয়। এ কারণেই শীতের পোশাকসহ লেপ-কম্বল আবদ্ধভাবেই সংরক্ষণ করা হয়। ফলে এতে গন্ধ বা স্যাঁতস্যাঁতেভাব হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

শীত প্রায় চলে আসছে। এসময় অনেকেই শীতের কাঁথা, কম্বল বা লেপ ব্যবহারের জন্য বের করছেন। অনেক দিন ধরেই তুলে রাখার কারণে ও সঠিক সংরক্ষণের অভাবে এতে দুর্গন্ধ, ভেজাভাব, তিল পড়ার সমস্যা এমনকি পোকার আক্রমণও দেখা দিতে পারে

তাই শীতের শুরুতেই এসব কাপড় রোদে দিতে হবে। রোদে দিলে কাঁথা, কম্বল ও লেপ বেশ ঝরঝরে হয়ে ওঠে। এখনই যদি কম্বল বা লেপের ব্যবহার শুরু না করতে চান তাহলে রোদে দিয়ে হাতের কাছেই কোথাও রাখতে পারেন, প্রয়োজনের সময় ব্যবহার করা সহজ হবে।

খুব বেশি শীত পড়লে রোদের তাপ কমে যায়। তাই আশানুরূপ রোদ পাওয়া যাবে না। ফলে এটাই শীতের কাপড় রোদে দেয়ার উপযুক্ত সময়। পরিধেয় পোশাকের ক্ষেত্রেও তিনি একইভাবে পদক্ষেপ গ্রহণ করার পরামর্শ দেন।

স্যাঁতস্যাঁতেভাব দূর করতে শীতের শুরুতে কাপড় রোদে দিয়ে নিতে হবে। শীতের পোশাক যেমন- সোয়েটার, জ্যাকেট, মোটা ট্রাউজার বা অন্যান্য ভারী কাপড়গুলো নামিয়ে পরিষ্কার করে নেয়া ভালো। পরে রোদ পাওয়া কঠিন হয়ে যাবে।

তাছাড়া এখনই গুছিয়ে রাখলে পরে ঠান্ডা বেশি পড়লে সহজেই হাতের কাছে পাওয়া যাবে। এই বছর শীতের পোশাকের যত্ন অন্যান্যবারের চেয়ে আলাদা হওয়া প্রয়োজন। কারণ এবার েএকই শীতের কাপড় বারবার ব্যবহার করা নিরাপদ নয়।

কোভিড-১৯’য়ের কারণে আমরা বাইরে থেকে এসেই পরনের পোশাক ধুয়ে পরিষ্কার করে রোদে শুকিয়ে নেই। তবে শীতের পোশাক ভারী হওয়ায় তা প্রতিদিন ধোয়া সম্ভব নয়। আবার এমন পোশাক বাসায় রাখাও নিরাপদ নয়।

সেক্ষেত্রে করণীয় হিসেবে বিশেষজ্ঞদের মত, মানুষ চলাচল করে না ঘরের এমন অংশে (আলো আসে এমন স্থান হলে ভালো) ২৪ ঘন্টা পরিহিত পোশাক ঝুলিয়ে রাখা যেতে পারে। আর ব্যবহারের আগে তা ভালো মতো ঝেড়ে ব্যবহার করতে হবে।

মাফলার, মাস্ক ও টুপি ব্যবহারের ক্ষেত্রে খুব বেশি সচেতন হওয়া জরুরি বলে মনে করেন তিনি। কারণ এগুলো সরাসরি মুখ, কান ও গলার সংস্পর্শে থাকে।

কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top