যা নিয়ে ফিরছেন বুবলি, অপু, পরীরা

অক্টোবরের মাঝামাঝি সময়ে খুলতে পারে প্রেক্ষাগৃহ। টানা প্রায় ছয় মাস প্রেক্ষাগৃহ বন্ধের কারণে একসঙ্গে আসতে যাচ্ছে বেশ কিছু নতুন ছবি। সেসব ছবির মধ্য দিয়ে একসঙ্গে আবার রুপালি পর্দা মাতাতে আসছেন বেশ কজন চিত্রনায়িকা।

এরই মধ্যে সেন্সর সনদ পেয়েছে ক্যাসিনো, শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ ২, জিন, বিশ্ব সুন্দরী, পরাণ, বিদ্রোহী, মিশন এক্সট্রিম, বান্ধবসহ বেশ কয়েকটি ছবি। এসব ছবি দিয়ে লকডাউনের পরে রুপালি পর্দায় আসছেন বুবলী, অপু বিশ্বাস, বিদ্যা সিনহা মিম, পূজা চেরি, পরীমনি, নুসরাত ফারিয়াসহ বেশ কয়েকজন চিত্রনায়িকা।

মুক্তির অপেক্ষায় বুবলী অভিনীত দুটি ছবি—ক্যাসিনো ও বিদ্রোহী। আগামী বছর ফেব্রুয়ারি মাসে ক্যাসিনো মুক্তি পেতে পারে। আর বিদ্রোহী ছবির মুক্তি নিয়ে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এখনো কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি।

‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ ছবির সেটে পরীমনি-সিয়াম।

‘অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন’ ছবির সেটে পরীমনি-সিয়াম। 

নতুন স্বাভাবিকে একাধিক ছবির কাজ শুরু করেছেন মাহিয়া মাহি। নবাব এলএলবি দিয়ে তিনি প্রেক্ষাগৃহে ফিরবেন, এমনটাই সিদ্ধান্ত। ছবিটি একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে আগে মুক্তি পাবে। তারপরই দেখা যাবে প্রেক্ষাগৃহে। মাহি জানান, দীর্ঘদিন পর এটিই হতে যাচ্ছে তাঁর কামব্যাক সিনেমা। নবাব এলএলবি ছবির পরিচালক অনন্য মামুন বলেন, ‘চলতি মাসেই আমরা ছবিটি মুক্তি দিতে চাই। ২৩ অক্টোবর মুক্তির তারিখ ঠিক করেছি, সেভাবেই পুরোদমে কাজ চলছে।’

করোনায় নতুন ছবির কাজ শুরু না করলেও সেন্সর ছাড়পত্র নিয়ে মুক্তির জন্য প্রস্তুত বিদ্যা সিনহা মিম অভিনীত ছবি পরাণ। প্রেক্ষাগৃহ খুললেই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান অবশ্য ছবিটি মুক্তি দিতে চায় না। তারা কিছুদিন পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবে। ছবিটি পরিচালনা করেছেন রায়হান রাফি। গত পয়লা বৈশাখে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার কথা ছিল। করোনার কারণে সেটি ভেস্তে যায়। ছবির প্রযোজক তামজিদ অতুল বলেন, ‘প্রেক্ষাগৃহ চালু হওয়ার এক মাস পরে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেব। প্রেক্ষাগৃহ পুরোদমে চালু হলে ছবিটি নিয়ে প্রচারের কাজ চালাব।’

সিনেমার দৃশ্যে শাকিব খান ও বুবলী। ছবি: ফেসবুক থেকে

সিনেমার দৃশ্যে শাকিব খান ও বুবলী। ছবি: ফেসবুক থেকে

দীর্ঘ বিরতি শেষে শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ টু ছবিটি রুপালি পর্দায় নিয়ে আসছে আলোচিত নায়িকা অপু বিশ্বাসকে। করোনার আগেই ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। করোনায় আটকে যায় ছবিটি। প্রেক্ষাগৃহ খুললে সবকিছু স্বাভাবিক হলে ছবিটি মুক্তি দেওয়ার পক্ষে ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান।

চিত্রনায়িকা পরীমনির দুটি ছবির কাজ শেষ হয়ে আছে। এর মধ্যে বিশ্ব সুন্দরী মুক্তির দিনক্ষণও চূড়ান্ত হয়েছিল। করোনার কারণে আর মুক্তি পায়নি। ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান সান মিউজিক অ্যান্ড মোশন পিকচার্সের নির্বাহী প্রযোজক অজয় কুন্ডু বলেন, ‘এ বছরই ছবিটি মুক্তি দিতে চাই। ১৬ ডিসেম্বর ছবিটি মুক্তি দেওয়ার একটা ভাবনা আছে। সবকিছু পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে।’

অপু বিশ্বাস

অপু বিশ্বাস

এ ছাড়া সম্প্রতি পরীমনি অ্যাডভেঞ্চার অব সুন্দরবন নামে একটি ছবির কাজ শেষ করেছেন। ছবিটির প্রযোজনা পরবর্তী কাজ বাকি আছে।

করোনার পরে পরিস্থিতি ভালো হলে জাজ মাল্টিমিডিয়া নাদের চৌধুরী পরিচালিত জিন ছবিটি দিয়েই প্রেক্ষাগৃহে ফিরতে চায়। সেই হিসেবে দীর্ঘ বিরতির পর এই ছবির মাধ্যমে পূজা চেরিকেও দেখা যাবে রুপালি পর্দায়। প্রতিষ্ঠানের পক্ষে আলিমুল্লাহ খোকন বলেন, ‘প্রেক্ষাগৃহ খুললেও দর্শক কেমন হবে, তা বোঝার চেষ্টা করছি। তাই প্রেক্ষাগৃহ খোলার পরে দর্শকের আগ্রহও দেখতে চাই। এত টাকা দিয়ে ছবি বানিয়ে প্রেক্ষাগৃহে দর্শক না পেলে ছবি মুক্তি দেওয়ার কোনো অর্থ হয় না।’

মুক্তির জন্য প্রস্তুত ছবিগুলোর পরিচালক ও প্রযোজকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, প্রেক্ষাগৃহ খুললে তাঁদের বেশির ভাগ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে চান। তারপর ছবির মুক্তি নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। কেউ কেউ প্রচারণার জন্য মাসখানেক কিংবা তার বেশি সময় নিতে চান।

পূজা চেরি
কমেন্টসমুহ
Secret Diary Secret Diary

Top